Skip to content

রেহমান সোবহানের অশান্ত স্মৃতি

March 30, 2017

UNTRANQUIL RECOLLECTIONS, The Years of Fulfilment ।। Rehman Sobhan ।। প্রকাশক : SAGE India ।। মূল্য : ভারতীয় টাকা ৮৯৫ (হার্ডকভার) ও ৪৫০ (পেপারব্যাক)

চৈতন্য ও বঙ্গভঙ্গ বিষয়ে পড়তে থাকা বেশ কয়েকটি বই ফেলে রেখেই গত বছরের একটা তাজা ইংরেজি বই নিয়ে পড়তে বসে গেলাম, বইটি পড়া শেষ করতে পারব কিনা জানা ছিল না, কারণ আজকাল অনেক বই পড়তে শুরু করে আর শেষ করা হয় না, এবং তুলনামূলকভাবে এটা ইংরেজি বইয়ের সাথেই বেশি হয়, ফলে বইটি শেষ করার আগ পর্যন্ত একটা অস্বস্তি ছিল কারণ বইটি পড়তে শুরু করার পরপরই মনে হয়েছিল বইটি নিয়ে একটা ‘বইপ্রস্থ’ লিখব এবং যদিও এটা সম্ভব বইটি পুরো না পড়েও কিছু একটা লেখা তারপরও যেহেতু এখনো পর্যন্ত কোনো বই পুরো না পড়ে একটাও ‘বইপ্রস্থ’ লিখিনি তাই বইটি পড়ে শেষ করতে পেরে আমি ‘বইপ্রস্থ’ লিখতে বসে গেছি, যদিও আমার ডান হাতটি সাম্প্রতিক এক দুর্বৃত্তায়নের শিকার হয়ে এখনো লেখার উপযুক্ত হয়ে ওঠেনি।

রেহমান সোবহান সবদিক থেকেই একজন অভিজাত ব্যক্তি, তার শিক্ষার পরিসরটা ভারত পাকিস্তান ইংল্যান্ড জুড়ে যেখাতে বয়েছে সেটাও তার পরবর্তী জীবনের একটা ছক তার আয়ত্তাধীন করেছে, এবং বইটি পড়তে পড়তে জীবনের লক্ষ্য ঠিক করা নেই এরকম একজন মানুষের অর্থনৈতিক রাজনৈতিক গুরুত্বে অভিষিক্ত হওয়াকে আমার খুব চমকপ্রদ কাহিনি মনে হয়েছে, সেসাথে স্বাধীন বাংলাদেশের জন্মের প্রেক্ষাপট মিলে এই চমকপ্রদ কাহিনিকে অসাধারণের পর্যায়ে নিয়ে গেছে, এবং তার জীবনের তাৎপর্য ওই অর্থে আরো বেড়ে গেছে যখন পাঠক শুরুতেই জেনেছেন তিনি একজন উর্দুভাষী আর বাংলাদেশের সন্তান নন তিনি ১৯৫৭ সালে ঢাকায় অধিবাস শুরু করেছিলেন।

যেকারণে রেহমান সোবহান সবচেয়ে পরিচিত ‘দুই অর্থনীতি’ ও ‘৬ দফা’ এদুটি প্রসঙ্গে সাধারণ জ্ঞান অর্জনের জন্যও এই বইটিই আমি পড়তে বলব, অনেকে অবশ্যই এদুটি বিষয়ে তার প্রবন্ধ ও সাংবাদিক রচনা পড়বেন কিন্তু আমি নিজে সেসবের চেয়ে তার এই আত্মস্মৃতি পড়ে বেশি আলোকিত হয়েছি।

তবে এই বইটির সম্পদ হল ত্রয়োদশ অধ্যায় Engagement with the National Struggle থেকে সপ্তদশ অধ্যায় Fulfilment: The Liberation of Bangladesh যেখানে আইয়ুব যুগের অবসান থেকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা পরবর্তী প্রথম ইংরেজি নববর্ষ যাপন পর্যন্ত এক বুদ্ধিজীবী মুক্তিযোদ্ধা রেহমান সোবহানের কথা সবিস্তারে বলা হয়েছে, যেই বুদ্ধিজীবী মুক্তিযোদ্ধাদের কথা আজকাল অনেকেই বলতে চান না যেমন অনেকেই আজকাল ঠিক মতো তাজউদ্দিন আহমেদের নির্বাহী মুক্তিযুদ্ধের কথাও বলতে চান না।

অবধারিতভাবেই শেখ মুজিবের প্রসঙ্গও এসেছে এই বইয়ে, অবশ্য আমার মনে হয় একাত্তর পরবর্তী সময় নিয়ে যদি রেহমান সোবহান লেখেন সেখানেই শেখ মুজিব প্রসঙ্গ অনেক সবিস্তারে আসবে কারণ একাত্তরের আগে রেহমান সোবহানের সাথে শেখ মুজিবের পরিচয় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হলেও এটার তৎপরতা স্বাধীন বাংলাদেশেই বেড়েছিল। এই বইয়ে এক জায়গায় শেখ মুজিবের বিশেষত্ব বলতে গিয়ে রেহমান সোবহান shrewd common senseএর কথা বলেছেন, আমি ধারনা করি তিনি এক্ষেত্রে শেখ মুজিবের অন্তর্ভেদী সাধারণ জ্ঞানের কথাই বোঝাতে চেয়েছেন।

বইটি সর্বার্থেই একটি প্রায় খুঁতহীন বইয়ের পর্যায়ে পড়ে, রেহমান সোবহান Bangali লিখছিলেন কিন্তু এক জায়গায় হয়ে গেছে genocide of Bengali people।

বইটির শুরু থেকেই চলচ্চিত্রে রূপান্তরের জন্য উপযোগী বই মনে হয়েছে আমার, বাংলা হিন্দি উর্দু ইংরেজি যেকোনো ভাষায় চেষ্টা চলতে পারে, অথবা এক চলচ্চিত্রেই চারটি ভাষার অনুপ্রবেশ ঘটে গেলে তো কথাই নেই।

কমিউনিটি ব্লগে, বইপ্রস্থ ১২

Advertisements
Leave a Comment

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: